ব্রেকিং নিউজ

সব রাজ্য থেকেই তাড়ানো হবে অবৈধ বাংলাদেশীদের

  |  ০৬:৪০, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯

ডেইলি সিলেট মিডিয়াঃ আসামে নাগরিকপঞ্জী নিয়ে বিতর্ক ও ক্ষোভের মধ্যেই দু’দিনের জন্য আসাম সফরে গিয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ ফের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, শুধু আসাম থেকেই নয়, গোটা ভারত থেকেই অবৈধ বাংলাদেশীদের চিহ্নিত করে বহিষ্কার করার ব্যাপারে সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ। সোমবার গুয়াহাটিতে নেডা- নর্থ-ইস্ট ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্সের (নেডা) চতুর্থ অধিবেশনে ভাষণ দিতে গিয়ে অমিত শাহ বলেছেন, আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই যে, অবৈধ অভিবাসীদের শুধু আসামেই নয়, ভারতের কোথাও থাকতে দেওয়া হবে না। আমাদের লক্ষ্য হল, অবৈধ অভিবাসীদের ভারত থেকে বহিষ্কার করা।

অবশ্য নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন আসবেই বলে জানালেও এদিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের পরে যারা একনাগাড়ে ভারতে এসেছেন, তাদের কোনওভাবেই নাগরিকত্ব দেওয়া হবে না। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে প্রতিবেশী দেশগুলি থেকে নির্যাতিত হয়ে আসা ৬টি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। সেই আইন অবশ্য কবে সংশোধন হয়ে চালু হবে তা নিয়ে অমিত শাহ কোন কথাই বলেননি। তিনি গত রবিবার আসামে পা দিয়েই জানিয়েছিলেন, আসাম থেকে অবৈধ অভিবাসীদের তাড়ানো হবেই। এদিন অবশ্য উত্তরপূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, সরকার আসাম থেকে অবৈধ অভিবাসীদের তাড়ালেও তারা পাশের রাজ্যে ঢুকে বাঁচতে পারবে না। উল্লেখ্য, এই প্রথম উত্তর-পূর্ব ভারতের ৮ রাজ্য বিজেপির নেতৃত্বাধীন জোটের শরিকদের শাসনাধীন। তবে নাগরিকত্ব আইন সংশোধনী বিল নিয়ে বিরোধিতা করেছে এই অঞ্চলের অনেক রাজ্য। এদিকে, নেডা চেয়ারম্যান হিমান্ত বিশ্ব শর্মা বলেছেন, এনআরসিতে অনেক ভারতীয় বাদ পড়েছেন, বিদেশিদের নাম ঢুকেছে। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে হিন্দুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রস্তাব নিয়েও অনেক আপত্তি উঠেছে। গঠনমূলক সমালোচনার মাধ্যমে, সকলের মত নিয়ে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তবে আসামের বিজেপি নেতারা অমিত শাহর সঙ্গে দেখা করে এনআরসি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেও নাগরিকপঞ্জী থেকে বাদ পড়াদের নিয়ে অমিত শাহ কোনও কথাই বলেননি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ