ব্রেকিং নিউজ

বিসিবির হাতে হাথুরুসিংহে ছাড়া বিকল্প নেই!

  |  ০৪:০৪, জুলাই ৩১, ২০১৯

ডেইলি সিলেট মিডিয়াঃ জাতীয় দলের কোচ সংকট। হন্যে হয়ে নতুন ভিনদেশি কোচের সন্ধানে বিসিবি। এ যেন ঘুরে ফিরে সেই আগের অনিশ্চয়তায় পতিত হওয়া। বলার অপেক্ষা রাখেনা, সেটা ছিল অনিচ্ছাকৃত।

কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে হঠাৎ সরে দাঁড়ানোয় নিদারুণ কোচ সংকটে পড়ে গিয়েছিল বিসিবি। এবার যেন নিজের ফাঁদে নিজেরাই জড়িয়ে পড়া। নতুন কোচ ঠিক না করে কোচ স্টিভ রোডসকে বিদায় করে এখন হাই প্রোফাইল বিদেশি কোচের সন্ধানে বোর্ড কর্তারা।

বিশ্বকাপ শেষে দলের অভ্যন্তরে কোনরকম শুদ্ধি অভিযান না চালালেও হেড কোচ, পেস-স্পিন বোলিং কোচের মত তিন তিনটি গুরুত্বপূর্ণ কোচিং স্টাফ বদলের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে বিসিবি। সেই প্রক্রিয়ায় আগেই চাকুরি হারিয়েছেন পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ আর স্পিন বোলিং কোচ সুনিল জোশি।

তাদের সাথে থাকা চুক্তি নতুনভাবে নবায়ন না করে বাতিল করেছে বোর্ড। শুধু তাই নয়। ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান কোর্টনি ওয়ালশের বদলে দক্ষিণ আফ্রিকান চার্লস ল্যাঙ্গাভেল্টকে নতুন পেস বোলিং কোচ করার প্রক্রিয়াও চূড়ান্ত। এই প্রোটিয়াই আগামী দিনে বাংলাদেশের পেসারদের হাতে কলমে শেখাবেন। আর নিউজিল্যান্ড তথা বিশ্ব ক্রিকেটের পরিচিত মুখ, বিশ্বের অন্যতম সেরা বাঁহাতি স্পিনার ড্যানিয়েল ভেট্টোরিকে করা হয়েছে স্পিন কোচ। কিন্তু হেড কোচ পদটি এখনো শূন্যই থেকে গেছে। আন্তর্জাতিক মানের হেড কোচ পেতে বিজ্ঞাপনও দেয়া হয়েছিল। ১৮ জুলাই সে আবেদনের দিন শেষ হয়ে গেছে। জানা গেছে, সেখানে কজন বিদেশি কোচ আবেদনও করেছেন। কিন্তু তারা কারা? তাদের নাম ধাম প্রকাশ করেনি বোর্ড।

বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন, অন্যতম শীর্ষ পরিচালক মাহবুবুল আনাম, জালাল ইউনুস আর আকরাম খানসহ সবাই মুখে তালা দিয়ে বসে আছেন। আবেদনকারীদের ভিতরে কারা কারা আছেন, তা জানাতে রাজ্যের আপত্তি তাদের।

এদিকে বিসিবির চোখ ছিল অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারের দিকে। কিন্তু এক নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে, সাবেক জিম্বাবুয়ান অধিনায়ক এবং ইংল্যান্ডের সাবেক কোচ অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার ‘না’ করে দিয়েছেন। কোচের বিষয়ে বোর্ডের একাধিক শীর্ষ কর্তার সাথে আলাপে একটি তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। সেটা হলো, ঠিক এই মুহূর্তে বিসিবির হাতে কোন বিদেশি হাই প্রোফাইল কোচ নেই। হ্যাঁ-না যাই হোক না কেন, সবেধন নীলমনি হলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে।

স্বদেশি এই কোচের সাথে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সম্পর্ক আপাতত খুব একটা ভালো নয়। হাথুরুকে হয়তো লঙ্কান বোর্ড রাখবে না। সেক্ষেত্রে আজকালের মধ্যে না হলেও সামনের দিনগুলোয় হয়তো বাংলাদেশের সাবেক এই কোচ ‘ফ্রি’ হয়ে যাবেন।

হাবভাবে বোঝা যাচ্ছে, বিসিবি সেই সময়টার দিকেই তাকিয়ে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক শীর্ষ কর্তা বলেই ফেলেছেন, এ মুহূর্তে বোর্ডের হাতে কোন ভাল বিকল্প নেই। এমন কেউ নেই যে, তার সাথে রাতারাতি কথা ও রফা হয়ে যাবে। বলে দেয়া যাবে, তিনিই হবেন পরবর্তী কোচ।

সেক্ষেত্রে ভিনদেশি হেড কোচের দেখা হয়তো সহসাই মিলবে না। কদিন আগে বিসিবি পরিচালক পর্ষদের সভা শেষে বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপনও অমন আভাসই দিয়েছেন। পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, এখনই ভিনদেশি হেড কোচ আসার ও পাবার সম্ভাবনা কম।

তার মানে অপেক্ষায় থাকতেই হবে। বিশেষ করে হাথুরুসিংহের ব্যাপারে লঙ্কান বোর্ডের সিদ্ধান্তর দিকেই আসলে ভিতরে ভিতরে তাকিয়ে বিসিবি। কারণ দুটি।

এক. হাতে হাথুরুসিংহে ছাড়া অন্য ভাল বিকল্প নেই।
দুই. অনেক কারণেই হাথুরুকে কোচ হিসেবে পছন্দও।

কাজেই ভাল বিকল্পর সন্ধান না মিললে হয়তো হাথুরুই আবার দায়িত্ব নেবেন। তবে তার আগে আছে কিছু ‘যদি-তবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ